Date : 2020-10-26

সত্যি জেনে ফেলাতেই কি খুন গোপীনাথ মুন্ডে, গৌরী লঙ্কেশ?

নয়া দিল্লি: ইভিএম হ্যাক করেই ২০১৪ সালে বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিল গেরুয়া শিবির। আর সেকথা জেনে ফেলাতেই চরম পরিনতি হয় বিজেপি নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডে ও সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশের। এদিন ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন মার্কিন প্রবাসী ভারতীয় প্রযুক্তিবিদ সৈয়দ শুজা। হাতে-কলমে ইভিএম হ্যাক করার কৌশলও দেখান তিনি।

লোকসভা নির্বাচনের মুখে তাঁর এই দাবি রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে। শুজার দাবি, ইভিএম হ্যাক হওয়ায় ফলেই ২০১৪-র নির্বাচনে ২০১টি আসনে হেরেছিল কংগ্রেস। ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে শুজা বলেন, বিজেপি সরকারের প্রাক্তন মন্ত্রী গোপীনাথ মুন্ডে ইভিএম হ্যাকের কথা জেনে গিয়েছিলেন এবং সেকথা প্রকাশ্যে আনারও সিদ্ধান্ত নেন তিনি। তাই পরিকল্পনামাফিকভাবেই সরকার গঠনের দিনকয়েকের মধ্যেই খুন করা হয় তাঁকে। গোপীনাথ মুন্ডের পাশাপাশি গৌরী লঙ্কেশের মৃত্যুর পেছনেও রয়েছে একই কারন। শুজার দাবি,সাংবাদিক গৌরী লঙ্কেশও এই খবর প্রকাশ করতে রাজি হয়েছিলেন আর সেই কারণেই গুলিতে ঝাঁঝরা করে দেওয়া করে দেওয়া হয় তাঁকে।

আরও পড়ুন: ভারতীয় নাগরিকত্ব ছাড়লেন মেহুল চোকসি

যদিও শুজার এই দাবি সম্পূর্ণ খারিজ করে,মামলার হুঁশিয়ারি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এর পাশাপাশি ভিত্তিহীন অভিযোগ বলে মন্তব্য করেছেন অরুণ জেটলি। এদিকে ওই সাংবাদিক বৈঠকে কপিল সিবালের হাজিরা নিয়ে কংগ্রেসকে বিঁধেছেন বিজেপি নেতা মুখতার আব্বাস নকভি। পাশাপাশি রবিশঙ্করের দাবি, গোপিনাথ মুন্ডে অ্যাক্সিডেন্টে মারা গিয়েছেন। পোস্টমর্টেম রিপোর্টেই সেকথা প্রকাশিত হয়েছে। সবমিলিয়ে এই নয়া বিতর্কে উত্তপ্ত রাজ্য-রাজনীতি।