Date : 2020-10-27

নিজের প্রিয়র শরীরের ক্লোনিং করালেন এই ব্যক্তি

ওয়েব ডেস্ক: বাড়িতে পোষ্য থাকলে একটা সময়ের পর সে বাড়িরই একজন সদস্যে পরিণত হয়। কিন্তু প্রিয়জন বা পোষ্য কেউই তো আর আজীবন বেঁচে থাকে না,তখন সেই মায়া কাটানোই জীবনে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু আজীবন প্রিয় পোষ্যকে নিজের কাছে ধরে রাখতে এরকমও করতে পারে কেউ? সম্প্রতি নিজের প্রিয় পোষ্য কুকুরটির জন্য যা করলেন এই চিনা নাগরিক তা শুনলে আপনি অবাক হতে বাধ্য। একদিন রাস্তা থেকে কুড়িয়ে এনেছিলেন তাকে। সাধ করে নাম রেখেছিলেন,‘জুস’। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু চিনা সিনেমা এবং বেশ কিছু টেলিভিশন বিজ্ঞাপনে অভিনয় করা হয়ে গিয়েছে জুসের। সে দেশের বিনোদন জগতের বেশ পরিচিত মুখ সে। কিন্তু বয়স বাড়ছে জুসের। তাই আশঙ্কা দানা বাঁধছিল তার মালিকের মনে। যদি কোনোদিন ছেড়ে চলে যায় সে। তাই এক অভিনব একটি পন্থা বের করে ফেলেন তিনি। জুসকে নিয়ে যান স্থানীয় একটি বায়োটেক কোম্পানির কাছে যারা পশুদের ক্লোনিং করিয়ে থাকে। ‘সাইনোজেন’ নামের সেই সংস্থাটি জুসের অবিকল একটি ক্লোন তৈরি করে দেয় তার মালিককে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে জন্ম নেওয়া সেই কুকুরটির নাম দেওয়া হয়েছে লিটল জুস। কিন্তু কী ভাবে সম্ভব হল এই পদ্ধতি?এই বায়োটেক কোম্পানিটি জানিয়েছে, তারা জুসের ত্বক থেকে ডিএনএ সংগ্রহ করে একটি ডিম্বানু নিষিক্ত করে এবং সেই নিষিক্ত ডিম্বাণুটিকে সারোগেসির মাধ্যমে বসানো হয় একটি স্ত্রী কুকুরের জঠরে। এই পুরো পদ্ধতিটির জন্য খরচ হয়েছে প্রায় ৫৫ হাজার ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩৮ লক্ষ টাকা। এভাবেই মৃত্যুর পরও লিটল জুসের মধ্যে বেঁচে থাকবে “জুস”।