Date : 2019-07-21

বেতন দিতে না পেরে বিপুল অর্থ সংকট নিয়ে কেন্দ্রের দ্বারস্থ BSNL

ওয়েব ডেস্ক: বিপুল আর্থিক সংকটের সম্মুখীন হয়ে কেন্দ্র সরকারের দ্বারস্থ বিএসএনএল কর্তৃপক্ষ। সংস্থার অবস্থা এমন পর্যায় পৌঁছেছে যে কোন মুহুর্তে কর্মীদের বেতন দেওয়া বন্ধ হয়ে যেতে পারে, তাই কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সংস্থার হয়ে করুন আবেদন করেছেন বিএসএনএল কর্তৃপক্ষ। সরকারের কাছে তারা আর্জি জানিয়েছেন, জুন, জুলাই মাসের বেতন কর্মীদের দিতে সক্ষম নয় সংস্থা। কারণ ১.৭৬ লক্ষ কর্মীদের জন্য বেতন বাবদ বরাদ্দ ৮৫০ কোটি টাকা নেই সংস্থার কাছে।

তাই আগামী জুন মাসের বকেয়া বেতন দিতে গেলে শীঘ্রই তাদের সরকারি সাহায্য প্রয়োজন বলে সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে। কিছুদিন আগেই বিএসএনএল-এর অস্থায়ী কর্মীদের বেতন দেওয়া নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়। কিন্তু এবার স্থায়ী কর্মীদেরও যে বেতন দেওয়া সম্ভব নয় তা কার্যত সরকারের কাছে স্বীকার করে নিয়েছে বিএসএনএল। এমনকি বাজারে প্রায় ১৩ হাজার কোটি টাকার ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়েছে সংস্থা।

তাই আগামী দিনে এই ব্যবসা চালানো প্রায় বন্ধের মুখে যেতে চলেছে সংস্থার তরফে তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। শুধু আর্থিক সাহায্য নয়, সংস্থার তরফে আগামীদিনে সংস্থাকে মজবুত করার জন্য সহায়তা চাওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, মার্চের শেষে ৯০ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে সংস্থার আর্থিক ক্ষতির পরিমান। যেমন ইদানিং সরকার ও প্রযুক্তি সংস্থাগুলি যেখানে ফোর জি পেরিয়ে ৫ জির দিকে চলে গেছে, সেখানেই বিএসএনএলের প্রযুক্তিতে এখনও একটিও ৪জি স্পেক্ট্রাম নেই।

গত মাসেই সংস্থার চেয়ারম্যানে এই গোটা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে একটি বিস্তারিত রিপোর্ট দেন। তবে সে কথা জানানো হলেও সরকারের তরফে কোনরকম সুরাহা হয়নি বলেই সূত্রের খবর। তাই ১.৭২ লক্ষ কর্মীর বেতন ও সংস্থার ভবিষ্যৎ নিয়ে কর্তৃপক্ষের কপালে এখন চিন্তার ভাঁজ।