Date : 2022-01-26

করোনাকালে দর্শকহীন সার্কাস, মাস্ক ব্যবহারে উপর জোর

শাহিনা ইয়াসমিন, রিপোর্টার : শীতকাল মানে ঘোরাঘুরি, পিকনিক আর সার্কাসে ভিড় করা। সার্কাস মানেই শৈশবের স্মৃতি। ছোটবেলায় সার্কাস দেখেননি এমন মানুষ কমই পাওয়া যাবে। তবে নতুন প্রজন্মের কাছে খুব শিগগিরিই তা ইতিহাসে পরিণত হবে। কারণ সার্কাস প্রায় উঠেই গেছে। এই করোনাকালেও শহরে সার্কাসের আসর বসেছে।

সার্কাস হলো জনপ্রিয় বিনোদনের মধ্যে একটি। শীতের মরশুম এলেই পার্কসার্কাস, সিঁথির মোড় সহ বিভিন্ন মাঠে সার্কাস বসত। করোনা ও অতিমারীর কারণে সেই চেনা ছবি এখন দেখা যায় না। তবে দুবছর পর সিঁথির মোড়ে সার্কাস বসেছে। অজন্তা সার্কাস। ২৩ ডিসেম্বরের অজন্তা সার্কাস বসলেও নতুন বিধি চালু হওয়ায় বেশকিছুদিন বন্ধ ছিল। শনিবার 8ই জানুয়ারি থেকে ফের সার্কাস চালু করা হয়েছে। করোনা বিধি মেনে স্যানিটাইজ করে ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়েই সার্কাস চালু হয়েছে। প্রবেশদ্বারের শুরুতেই লেখা আছে বড় বড় করে মাস্ক পড়া বাধ্যতামূলক। মাস্ক ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না। টিকিট কাউন্টার থেকে শুরু করে মূলদ্বারের সামনেও লেখা মাস্ক ব্যবহার করুন। শুধু মাস্ক নয়, স্যানিটাইজারের উপরেও জোর দেওয়া হয়েছে। বলে জানান অজন্তা সার্কাসের ম্যানেজার কিশোর দাস।
ছোট থেকে বড় সকলেরই বিনোদন সার্কাস। বিভিন্ন কারণে অনেক নামীদামী সার্কাস বন্ধ হয়ে গেছে। ভারতে সার্কাস এখন ইতিহাস। করোনা সংক্রমণ বাড়ার কারণে সার্কাস নিয়ে চিন্তায় সার্কাস মালিকরা। সার্কাসের ভিতরে প্রবেশ করলে দেখা যাচ্ছে ৫০ শতাংশের বদলে গুটিকয়েক দর্শক নিয়েই সার্কাস হচ্ছে। পুরোটাই ফাঁকা। তবুও আশা ছাড়ছেন না সার্কাস মালিকরা।