Date : 2022-08-10

কড়া নিরাপত্তার ঘেরাটোপে ২১ শে জুলাইয়ের মঞ্চ

সঞ্জনা লাহিড়ী, সাংবাদিক: রাত পোহালেই তৃণমূলের শহীদ দিবস। ২১শে জুলাইকে কেন্দ্র করে কড়া নিরাপত্তা বলয়ে আবদ্ধ মূল সভাস্থল। বিগত ২ বছরের করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে এবারে ধর্মতলায় পালিত হতে চলেছে ২১ শে জুলাই। এবারের তৃণমূলের শহীদ দিবস নিয়ে তৎপরতা তুঙ্গে। ত্রিস্তরীয় নিরাপত্তা বলয়ে ঘেরা হয়েছে মূল মঞ্চ। ২১ শে জুলাইকে কেন্দ্র করে ডিউটিরত থাকছেন ৩০ জন ডেপুটি কমিশনার। ৭০ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারকে রাখা হচ্ছে বিভিন্ন পয়েন্টে। থাকবেন ১৫০ জন ইন্সপেক্টর ৱ্যাঙ্কের আধিকারিক। এছাড়াও সাব ইন্সপেক্টর ও সার্জেন্ট ৱ্যাঙ্কের অফিসার থাকবেন ৭৫০ জন। ৩৫০০ বাহিনী মোতায়েন থাকছে ধর্মতলা চত্বরে।

আলাদা ভাবে আরও ১০০০ বাহিনী থাকবে ট্রাফিক বিভাগ থেকে। বিশাল এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে কোথাও কোনও রকম বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি যাতে না হয় তাই রাখা হচ্ছে ৩ টি কুইক রেসপন্স টিম। এছাড়াও ১২ টি হেভি রেডিও ফ্লাইং স্কোয়াড থাকছে ২১ শে জুলাইয়ে। রাখা হচ্ছে। এদিন শহরের নিরাপত্তায় থাকছে বাড়তি ছাপ। ৫৮ টি পিসিআর ভ্যান সমগ্র শহর জুড়ে ঘুরবে। সভামঞ্চ পর্যন্ত যে সমস্ত মানুষেরা পৌছতে পারবে না তাঁদের জন্য ১০ টি জায়ান্ট স্ক্রিনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শহরের মূল কয়েকটি পয়েন্ট থেকে বড় মিছিল এসে পৌছবে ধর্মতলা সভামঞ্চে। সেই সমস্ত পয়েন্টে মোতায়েন থাকবে পুলিশ। এছাড়াও ধর্মতলা সংলগ্ন গঙ্গার ঘাটে থাকবে কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স ও দমকল ইঞ্জিন রাখা হচ্ছে সভাস্থলে। ধর্মতলা সংলগ্ন বহুতল গুলিতে নজরদারির জন্য বুধবার থেকেই মোতায়েন থাকছে পুলিশ। এছাড়াও থাকবে সাদা পোশাকে পুলিশ। কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বাড়িতে অনুপ্রবেশকারীর ঘটনার জন্য এই বছর বিশেষ নজরদারি থাকছে পুলিশের।