Date : 2024-02-21

লোকসভা নির্বাচনের আগেই আরও এক নির্বাচনের মুখে রাজ্য। জানুন কিসের নির্বাচন

সঞ্জু সুর, সাংবাদিক ঃ ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে সব রাজনৈতিক দলগুলো‌ও। তার মধ্যেই রাজ্যসভার নির্বাচন নিয়ে প্রেস রিলিজ প্রকাশ করলো জাতীয় নির্বাচন কমিশন। আগামি ২৭ ফেব্রুয়ারি হবে এই নির্বাচন।

সারা দেশের ১৫ টি রাজ্যের মোট ৫৬ টি রাজ্যসভার আসন খালি হতে চলেছে আগামি এপ্রিল মাসের ২ ও ৩ তারিখ। এই ৫৬ টি আসনের মধ্যে অন্ধ্র প্রদেশ ও তেলেঙ্গানা-য় তিনটি করে, ছত্রিশগড়, হরিয়ানা, হিমাচল প্রদেশ ও উত্তরাখন্ডে একটি করে, বিহার ও মহারাষ্ট্রে ছয়’টি করে , কর্ণাটক ও গুজরাটে চারটি করে, উত্তরপ্রদেশের দশটি আসন এবং মধ্যপ্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের পাঁচটি করে আসনের রাজ্যসভা সাংসদদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২ এপ্রিল ২০২৪। উড়িষ্যা ও রাজস্থানের তিনটি করে আসনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৩ এপ্রিল। ১৫ টি রাজ্যের এই মোট ৫৬ টি আসনের জন্য নির্বাচন হবে আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি। রাজ্যসভার এই নির্বাচনের জন্য বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা দিন জানানো হলো। ৮ ফেব্রুয়ারি বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা করা হবে। ঐদিন থেকেই মনোনয়ন জমা দেওয়া যাবে। মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ২০ ফেব্রুয়ারি। ২৭ ফেব্রুয়ারি ভোটগ্রহণ পর্ব চলবে সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৪ টে পর্যন্ত। ঐদিনই হবে গণনা।

আমাদের রাজ্যের ক্ষেত্রে যে পাঁচটি আসন (রাজ্যসভায়) খালি হচ্ছে সেগুলি হল
শান্তনু সেন, নাদিমুল হক, শুভাশিস চক্রবর্তী ও আবীর রঞ্জন বিশ্বাস (এই চার জন‌ই তৃণমূল কংগ্রেসের)। এছাড়া তৃণমূল কংগ্রেসের সমর্থণে জেতা কংগ্রেসের অভিষেক মনু সিংভি-র মেয়াদ ও শেষ হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের এই মোট পাঁচটি আসনের মধ্যে ফের একবার চারটি আসন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীরাই যে জিতবে তা এক প্রকার নিশ্চিত। বিধানসভায় কংগ্রেসের কোন প্রতিনিধিত্ব নেই। ফলে কংগ্রেসের টিকিটে এবার আর অভিষেক মনু সিংভি প্রার্থী হতে পারবেন না। তবে তাকে তৃণমূলের টিকিটে ফের একবার রাজ্যসভায় পাঠানো হবে কিনা সেই বিষয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে। এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সামনেই রাজ্য বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন রয়েছে। সূত্রের খবর এই বাজেট অধিবেশন চলাকালীনই তৃণমূল কংগ্রেস তাদের প্রার্থীদের নাম জানিয়ে মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর্ব শেষ করবে। এই পাঁচটি আসনের মধ্যে সংখ্যার নিরিখে একটি আসন অবশ্য যেতে চলেছে বিজেপির ঝুলিতে।