Date : 2021-04-22

রাজ্যের চিকিৎসক আন্দোলনের প্রভাব, দিল্লির AIIMS-এ কর্মবিরতির ডাক…

ওয়েব ডেস্ক: রোগী মৃত্যুর জেরে প্রথমে ডাক্তার ও রোগীর পরিবারের মধ্যে হাতাহাতি, পরে রোগীর আত্মীয়দের ছোঁড়া ইটের আঘাতে জখম দুই ইন্টার্ন ডাক্তার। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতির জেরে বাংলার চিকিৎসায় কার্যত অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে।

ইন্টার্নদের দাবি অবিলম্বে কর্মস্থানে তাদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করা হোক। এই দাবিতে শুধু রাজ্যের ডাক্তাররা নয়, দেশের চিকিৎসকরাও পাশে দাঁড়ালেন এনআরএস-এর চিকিৎসকদের। এই ঘটনার প্রতিবাদে প্রতীকী কর্মবিরতি পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে নয়াদিল্লি AIIMS-এর চিকিৎসকরা।

পুরোপুরি বন্ধ থাকবে AIIMS-এর পরিষেবা এমনটাই জানানো হয়েছে হাসপাতালের পক্ষ থেকে। এমনকি অন্যান্য সংগঠনগুলিকেও এই আন্দোলনে যোগ দেওয়ার জন্য আবেদন করা হয়েছে। ফলে আগামীকাল গোটা দেশে জুড়ে স্বাস্থ্য পরিষেবা বেহাল হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার মুখ্যমন্ত্রী এসএসকেএম হাসপাতলে গিয়ে চিকিৎসা ব্যবস্থা স্বাভাবিক করার জন্য কার্যত কড়া বার্তা দেন চিকিৎসকদের। চিকিৎসার মতো জরুরী পরিষেবা দিনের পর দিন বন্ধ রাখা যায় না তাই ‘এসমা’ চালু করার করা বার্তা দেন। কিন্তু এর পরেও গলেনি বরফ।

এদিন বিকেলে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজে ফের একবার উত্তেজনা ছড়ায়। আন্দোলনরত ছাত্রদেরকে লক্ষ্য করে হাসপাতালের বাইরে থেকে ইট ছোঁড়া হয়। ঘটনার জেরে ফের একজন ইন্টার্নের গুরুতর চোট লাগে। এর ফলে পরিস্থিতি আগামীকালও স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভবনা দেখছেন না অনেকেই। একই সঙ্গে  AIIMS-এর ডাক্তাররা কর্মবিরতিতে গেলে সমস্যা আরও জটিল আকার নিতে পারে বলেই মনে করা হচ্ছে।