Date : 2024-05-26

রোদে বেরোলেও হচ্ছে না ঘাম! সাবধান হতে বলছেন চিকিৎসকরা

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিক: বৈশাখী দহনে নাজেহাল গোটা রাজ্য। সকাল থেকেই চড়া রোদে কাহিল সকলেই। তবু এই তীব্র গরমে অস্বস্তি হলেও হচ্ছে না ঘাম! আর এই অবস্থায় ভীষণ সাবধান হতে বলছেন চিকিৎসকরা।

প্রচণ্ড গরম সত্ত্বেও তেমন ঘাম না হওয়াটা হিটস্ট্রোকের উপসর্গ। এই স্ট্রোক কিন্তু ভীষণ মারাত্মক। দ্রুত চিকিৎসা না নিলে জীবননাশের ঝুঁকিও থাকে। হিটস্ট্রোকে শরীরের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক বেড়ে যায়। ত্বক উত্তপ্ত এবং লালচে হয়ে যেতে পারে।

এই পরিস্থিতি এড়াতে শরীরকে হাইড্রেট রাখতে হবে। অন্যান্য সময়ের থেকে প্রচুর পরিমাণে বেশি জল খেতে হবে। টানা রোদে থাকা যাবে না। খুব কষ্ট হলে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

হিটস্ট্রোক হলে রোগী হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে যেতে পারেন। অজ্ঞান হওয়ার আগে মাথা দপদপ, মাথা ঘোরা, মাথা হালকা অনুভব করা, পেশির দুর্বলতা কিংবা পেশির ব্যথার মতো কিছু উপসর্গও দেখা দিতে পারে। কেউ কেউ অনুভব করেন, হৃৎপিণ্ডের গতি বেড়ে যাচ্ছে। খিঁচুনি, ঘন ঘন শ্বাসপ্রশ্বাস, বমিভাব কিংবা বমিও হতে পারে। রোগী অসংলগ্ন আচরণও করতে পারেন।

প্রচণ্ড গরমে শারীরিক পরিশ্রম করতে হয় বা বাইরে কাজ করতে হয়, এমন মানুষদেরই হিটস্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে বেশি। গরমে জল কম খেলেও ঝুঁকি থাকে। মদ্যপানকারী ব্যক্তিরাও ঝুঁকিতে থাকেন।

আরো পড়ুন: কেন্দ্রীয় সরকারের উদাসীনতার জন্য কখনই মা হারা মেয়েকে তার অধিকার থেকে বঞ্চিত করা যাবে না হাইকোর্ট