Date : 2024-05-24

তীব্র পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া কোভিড ভ্যাকসিনের! দায় স্বীকার ওষুধ কোম্পানির

সায়ন্তিকা ব্যানার্জি, সাংবাদিক: গোটা বিশ্বে তখন করোনা মহামারী তার প্রভাব বিস্তার করে ফেলেছে প্রত্যেকদিন শুধুই মৃত্যু মিছিল সেই সময় সত্যিই যেন রক্ষাকবচ হয়ে উপস্থিত হয়েছিল কোভিড(Covid) ভ্যাকসিন আর সেই ভ্যাকসিনের জেরেই নাকি দেখা দিতে পারে তীব্র পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া, অবশেষে নিজেদের দায় স্বীকার করল ওষুধ কোম্পানি।

সম্প্রতি ওষুধ নির্মাতা কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানিয়েছে তাদের তৈরি কোভিড(Covid) টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। ব্রিটেনের হাই কোর্টে জমা দেওয়া নথিতেই অ্যাস্ট্রাজেনেকা স্বীকার করে নিল যে, তাদের তৈরি কোভিড টিকা বিরল হলেও ‘থ্রম্বোসাইটোপেনিয়া সিনড্রোম তৈরি করতে পারে। যা থেকে থ্রম্বোসিস, প্লেটলেট কমে যাওয়ার মতো একাধিক পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হতে পারে। কোভিশিল্ড ও ‘ভ্যাক্সজেভরিয়া’ নামে কোভিডের টিকা বিক্রি করেছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা।

কিন্তু হঠাৎ এতদিন বাদে কেন? টিকা নিয়েছেন এমন অনেকেরই হঠাৎ করেই বেড়ে গিয়েছে হার্ট অ্যাটাক ও সেরিব্রাল অ্যাটাকের প্রবণতা। এছাড়াও শরীরের একটা অংশ অসাড় করে পঙ্গু করে দিচ্ছে। রক্ত জমাট বাঁধিয়ে শিরা-ধমনীতে থ্রম্বোসিস ঘটাচ্ছে। এর নেপথ্যে যে কারণ রয়েছে তার সন্ধান চলছিল। এবার তার খোঁজ মিলল। আর তার জেরেই সামনে এল এই ভয়াবহ সত্যি।

জানা গেছে অ্যাস্ট্রোজেনেকার বিরুদ্ধে ব্রিটিশ আদালতে ৫১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। যেখানে ভুক্তভোগীরা মোট ১০০ মিলিয়ন পাউন্ড ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

এই মামলাটি দায়ের করেছিলেন জেমি স্কট নামে এক ব্যক্তি। ২০২১ সালের এপ্রিলে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন নিয়ে তার মস্তিষ্ক অসাড় হয়ে যায়। সেই সূত্রেই আরও কয়েকটি ঘটনার কথা উঠে আসে, যেখানে থ্রম্বোসিসের লক্ষণ দেখা গিয়েছিল। এই মুহুর্তের এই স্বীকারোক্তি যে ব্যাপক আইনি জটিলতা তৈরি করবে এবং যদি কোম্পানি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে ভ্যাকসিন-জনিত অসুস্থতা বা মৃত্যু ঘটে তবে তাদের বিশাল অঙ্কের ক্ষতিপূরণ দিতে হতে পারে তা বলাই বাহুল্য।

আরো পড়ুন: ২মে মাধ্যমিকের ফলপ্রকাশ। কোন কোন ওয়েবসাইটে দেখা যাবে জেনে নিন।